মুখের অনাকাঙ্ক্ষিত লোম তুলে ফেলুন এই সহজ প্রক্রিয়ায় - প্রিয়লেখা

মুখের অনাকাঙ্ক্ষিত লোম তুলে ফেলুন এই সহজ প্রক্রিয়ায়

Milky Reza (Editor)
Published: August 2, 2019

“সুন্দর, তুমি এসেছিলে আজ প্রাতে

অরুন-বরণ পারিজাত লয়ে হাতে।”

অথবা-

“হে লভিনু সঙ্গ তব

সুন্দর হে সুন্দর।”

সুন্দর। অবশ্যই কেবল বাহ্যিক নয়, তবে বাহ্যিক সৌন্দর্য ও কিন্তু অবহেলাযোগ্য নয়। কবিগুরু সহ সকল কবি সাহিত্যিক এমনকি সকল সাধারণ মানুষই সুন্দর দেখতে পছন্দ করেন। তাই সৌন্দর্য একটি গুরুত্বপূর্ণ বিষয়। যার রুচি এবং ব্যক্তিত্ব সুন্দর সে নিজেকে সুন্দরভাবে উপস্হাপন করার চেষ্টা করবেন এটাই স্বাভাবিক। আপনার পরিচয় যাই  হোক, যতোই ব্যস্ততা থাকুক না কেন, দিনশেষে নিজের প্রতি একটু হলেও যত্ন নেওয়া উচিত। সব তাড়াহুড়োর মাঝেও একটু সাজগোজ করতে আমরা ভুল করিনা।

আর এই ব্যস্ততম নাগরিক জীবনে তাৎক্ষনিক একটু সুন্দর সাজের জন্য, আমাদের ত্বক রাখতে হবে সবসময় প্রস্তুত।

আর সেক্ষেত্রে মেয়েদের মুখের ত্বক মসৃন থাকা খুবই জরুরী। মুখের ত্বক মসৃণ না থাকলে মেকাপ সহজে বসেনা বা ভালো দেখতে লাগেনা। হিতে বিপরীত ঘটনা ঘটতে পারে।

আমরা জানি পুরুষ এবং নারী, সবার শরীরেই পুরুষ হরমন, মহিলা হরমন দুটোই আনুপাতিক হারে বিদ্যমান। পুরুষের শরীরে পুরুষ হরমন বেশী মহিলা হরমন কম, আর মহিলাদের ক্ষেত্রে উল্টো।

তবে মাঝে মাঝে কারো কারো ক্ষেত্রে এর সামান্য তারতম্য ঘটে।

পুরুষ হরমোনের কারনেই মেয়েদের শরীরে লোম আসার প্রবনতা থাকে। আর যদি প্রয়োজনের তুলনায় পুরুষ হরমোনটি সামান্য বেশী থাকে তাহলে মেয়েদের মুখের ত্বকে, গোফের মত এবং দাড়ির মত শক্ত শক্ত লোম আসে।

এটা খুব বড় জটিলতা নয়। তবে সৌন্দর্যের ক্ষেত্রে খানিকটা বিপত্তি ঘটায়।

আর এই ব্যস্ত জীবনে মাঝে মাঝেই পার্লারে গিয়ে এসব লোম  তুলে আসা সম্ভব হয়না সময়ের অভাবে। আবার অনেকে পার্লারে যেয়ে এই কাজ করাতে লজ্জাও পান, অনেক ক্ষেত্রে এটা ব্যয়বহুল ও বটে।

তাই আমরা সকলেই এমন একটা সমাধান খুঁজি যা ঘরে ফিরে বিশ্রাম নিতে নিতেই বা ঘরের কাজ করতে করতেই সম্ভব।

হ্যা, মুখের অনাকাঙ্ক্ষিত লোম তুলে ফেলার তেমনি একটি সমাধানের কথা আলোচনা করবো আজ।

# উপকরণঃ জেলেটিন পাউডার, তরল কাঁচা দুধ, মধু, হলুদ।

# প্রক্রিয়াঃ জেলেটিন পাউডার খুবই সহজলভ্য একটি উপাদান। কসমেটিকস এর দোকানে সহজেই পাওয়া যায়।

প্রথমে একটি বাটিতে এক চা চামচ জেলেটিন পাউডার নিন। এবার কাঁচা দুধটা না ফুটিয়ে হালকা গরম করুন এবং জেলেটিন পাউডারের মধ্যে দুই টেবিল চামচ কুসুম গরম দুধ নিন। এবার আধা চা-চামচ মধু ও এক চিমটি হলুদ মিশ্রনটির সাথে মেশান।

খুব ভালো করে মিশিয়ে পেস্ট তৈরী করে নিন।

এরপর ঠান্ডা পানি দিয়ে ভালো করে মুখ ধুয়ে নিন।

একটি হাঁড়িতে পানি ফুটিয়ে তার বাষ্প মুখে লাগান যেন মুখের লোমকূপগুলো নরম হয়ে যায়।

এরপর মিশ্রনটিকে একটি নরম ব্রাশের সাহায্যে সারা মুখে লাগান। খেয়াল রাখবেন যেন চোখের খুব কাছে, আইভ্রুতে এবং চুলে না লাগে।

এভাবে লাগিয়ে আধাঘন্টা আপনি বিশ্রাম নিতে পারেন বা ঘরের কাজ করতে পারেন।

আধাঘন্টা পর মুখের প্যাকটি শুকিয়ে যাবে।

তখন  মুখোশটি আস্তে আস্তে  তুলে ফেলবেন। অবশ্যই মুখের নিচের দিক দিয়ে উপরের দিকে তুলবেন কারন লোমের বিপরীত দিক দিয়ে তুললেই লোমগুলো উপড়ে আসবে।

সত্য কথা বলতে কি ত্বকে সামান্য ব্যথা অনুভূত হতে পারে তাই খুবই সাবধানে মুখেশটি তুলবেন। উল্লেখ্য জেলেটিন পাউডারের গন্ধটা খুব একটা সুখকর নয় তাই গন্ধ এড়াতে মিশ্রনটি সামান্য লেবুর রস দিতে পারেন।

মুখোশটি তোলার পর ঠান্ডা পানি দিয়ে ভালো করে মুখ ধুয়ে ফেলুন। তারপর বরফ টুকরো দিয়ে মুখে ম্যাসাজ করে কোমল কোন একটি ক্রীম লাগানো যেতে পারে।

এভাবে প্রয়োজন অনুযায়ী ঘরে বসেই অন্য কাজের পাশাপাশি নিজেকে সুন্দর রাখা সম্ভব।

 

ছবিঃ সংগৃহীত