ফেসবুক : অজানা-বিস্ময়কর তথ্য (পর্ব-২) - প্রিয়লেখা
ফেসবুক

ফেসবুক : অজানা-বিস্ময়কর তথ্য (পর্ব-২)

চৌধুরী সাহেব
Published: August 4, 2016

পছন্দ-অপছন্দ যাই করুন, ফেসবুক ছেড়ে যাবেন কোথায়? ইন্টারনেটের প্রতিটি ক্ষেত্রেই এর প্রভাব বিস্তৃত। এমনকি চীন, যেখানে ফেসবুক নিষিদ্ধ সেখানেও বসবাসরত ৩০ শতাংশ প্রাপ্তবয়স্ক তাদের খবরাখবর গোপনে ফেসবুক থেকেই পান।বিশ্বের সবচেয়ে বড় সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম হিসেবে এর রয়েছে চাঞ্চল্যকর মজার কিছু গল্প। ফেসবুকের অবাক করা ১৯টি চাঞ্চল্যকর ঘটনা জানতে ঝটপট পড়ে ফেলুন।

আগের পর্ব

আমেরিকানরা মোবাইলে ৭০ শতাংশ সময় কাটায় ফেসব‍ুক অ্যাপে

আমেরিকায় প্রাপ্তবয়স্ক ফেসবুক ব্যবহারকারীদের মোবাইলের ৬৮ শতাংশ ব্যবহার হয় ফেসবুক অ্যাপ নাড়াচাড়া করে। তারপরও ২০১৩ সালে অ্যাপ বিজ্ঞাপনদাতা ছিলেন মাত্র আট হাজার ৪শ জন। কিন্তু মজার ব্যাপার হলো, ওই বছরে আট হাজার ৪শ বিজ্ঞাপনদাতা ১শ ৪৫ মিলিয়নেরও বেশি অ্যাপ ইনস্টল করাতে পেরেছেন। বর্তমানে এতে সক্রিয় বিজ্ঞাপনদাতা রয়েছেন ২ মিলিয়নেরও বেশি।

ফেসবুক এ বিজ্ঞাপনরীতির সর্বনিম্ন খরচ ০.১১ মার্কিন ডলার

প্রতি ক্লিকে বিজ্ঞাপনরীতির সর্বনিম্ন খরচ হলো, মাত্র ০.১১ ইউ এস ডলার আর সর্বোচ্চ ০.৫৮ মার্কিন ডলার।

ফেসবুক এর মাথাপিছু আয়

আমেরিকা ও কানাডায় গড়ে মাথাপিছু ৫.৮৫ মার্কিন ডলার আয় করে ফেসবুক। মাসিক হিসেবে এ দু’টো দেশেই সর্বোচ্চসংখ্যক সক্রিয় ব্যবহারকারী রয়েছেন। এ ব্যবহারকারীরাই দক্ষিণ আমেরিকাকে ফেসবুকের একটা গুরুত্বপূর্ণ বাজারে পরিণত করেছে।

মিনিটে ফেসবুকের আকস্মিক দুর্ঘটনায় ব্যয় ২৫ হাজার মার্কিন ডলার!

প্রতি মিনিটে বিভিন্ন দুর্ঘটনায় প্রায় ২৪ হাজার ৪শ ২০ ইউএস ডলার ব্যয় করে ফেসবুক। ২০১৪ সালের আগস্টে ১৯ মিনিট স্থায়ী একটি দুর্ঘটনায় এ বাড়তি খরচ গিয়ে দাঁড়িয়েছিলো প্রায় সাড়ে চার লাখ ইউএস ডলার।

রাত ১০টা-১১টায় প্রকাশিত পোস্টে বেশি সাড়া পাওয়া যায় 

আমেরিকা ও তার আশেপাশের এলাকায় দিনের অন্যসময় প্রকাশিত ফেসবুক পোস্টগুলোর তুলনায় রাত ১০টা থেকে ১১টার মধ্যে প্রকাশিত পোস্টগুলো সাড়া ফেলে ৮৮ শতাংশ বেশি। আবার যেসব পোস্ট প্রশ্ন রেখে শেষ করা হয়, সেগুলোতে সাড়া পড়ে গড়ে ১৬২ শতাংশ।

রোজ ৪ বিলিয়ন ভিডিও দেখা হয়

২০১৪ সালের সেপ্টেম্বরের জরিপে জানা যায়, ব্যবহারকারীরা প্রতিদিন মোট এক বিলিয়ন ভিডিও দেখেন। আজকের দিনে এই সংখ্যা রূপান্তরিত হয়েছে চার বিলিয়নে।

সবচেয়ে বেশি শেয়ার হয় ভিডিও 

ফেসবুক শেয়ারের ক্ষেত্রে অন্য সব কিছুর চেয়ে সবচেয়ে এগিয়ে রয়েছে ভিডিও শেয়ারিং। গড়ে প্রতিটি ভিডিও ৮৯.৫ বার শেয়ার করা হয়। যা কিনা ছবি শেয়ার বা লিখিত পোস্ট শেয়ারের সংখ্যার তুলনায় বেশি।

দিনে দু’টি পোস্ট তিন বা ততোধিকের চেয়ে ফলদায়ক

ফেসবুকে রোজ ক’টি পোস্ট করেন? জানেন, প্রতিদিন এক বার বা দু’বার পোস্ট করা, তিন বা ততোধিকবার পোস্ট করার চেয়ে ৪০ শতাংশ বেশি ফলপ্রসূ।  ফেসবুকের কারিগরি বিপণন ব্যবস্থা সুদক্ষ। কিন্তু তা সত্ত্বেও ফেসবুকের কারিগরি কারণেই প্রাণপণ  চেষ্টা করেও আপনার নিজের প্রয়োজনীয় জিনিস সহজে দেখতে পারেন না।