মার্টেলস্ প্লানটেশনের সেই অভিশপ্ত আয়না - প্রিয়লেখা

মার্টেলস্ প্লানটেশনের সেই অভিশপ্ত আয়না

farzana tasnim
Published: September 8, 2017

মার্টেলস্ প্লানটেশন, আমেরিকার সবচেয়ে ভুতুড়ে বাড়ি। জনশ্রুতি আছে, এ বাড়িতে ১২জন প্রেতাত্মার বাস এবং কমপক্ষে ১০টি হত্যাকান্ড সংগঠিত হয়েছে। এছাড়া এ বাড়িকে ঘিরে রয়েছে বিচিত্র সব কাহিনী। মার্টেলস প্লানটেশনের সবচেয়ে ভুতুড়ে যে জিনিসটির কথা জানা যায় তা একটি আয়না। আয়নাটি ১৯৮০ সালে এ বাড়িতে আনা হয়।

কিংবদন্তী অনুসারে, এ আয়নায় বাস করে এ বাড়ির একসময়ের গৃহকর্ত্রী সারা উড্রাফ এবং তার ছোট্ট দুই কন্যার প্রেতাত্মা। যারা তাদের বাড়ির গৃহকর্মী ক্লয়ীর দ্বারা খাবারে বিষপ্রয়োগে মারা গিয়েছিল। প্রথা অনুযায়ী, আমেরিকাতে যখন পরিবারের কোন সদস্য মারা যায় তখন বাড়ির সব আয়নাগুলো কাপড় দিয়ে ঢেকে দিতে হয় যাতে মৃতদের আত্মা আয়নায় বন্দী হতে না পারে। কিন্তু, বেচারী ক্লয়ী! সব আয়না ঢাকলেও একটি আয়না ভুলবশত খোলা রেখেছিল বলে কথিত আছে। একারণেই সারা এবং তার বাচ্চারা সেই আয়নায় বন্দী হয়ে পরে।

 

মার্টেল প্লানটেশনের দর্শনার্থীদের প্রায়শই অনুযোগ করতে শোনা যায়, আয়নার পেছনে অন্ধকারে তারা একটা আবয়ব দেখতে পায়। তাছাড়া, আয়নার ভেতর দিকে ছোট বাচ্চার হাতের ছাপও নাকি মাঝে মাঝে অনেকের চোখে পড়ে। এখানে যদি আপনি এক রাত কাটাতে চান তাহলে আপনাকে খরচ হবে ১১৫ ডলার। তবে যারাই এখানে রাত কাটাতে এসেছেন তার আবিচিত্র সব অভিজ্ঞতা নিয়ে ফিরে গেছেন বলেই জানা গেছে। অনেকে আবার স্নায়ুর উপরে অতিরিক্ত চাপ সহ্য করতে না পেরে অসুস্থও হয়ে পড়েছিলেন। সে যাই হোক, অভিশপ্ত আয়না দেখার লোভ থাকলে আপনিও ঘুরে আসতে পারেন সেখান থেকে।