বেতনে প্রযুক্তি প্রধানদের সেরা দশ - প্রিয়লেখা

বেতনে প্রযুক্তি প্রধানদের সেরা দশ

চৌধুরী সাহেব
Published: August 13, 2016

 

 

অ্যাপলের টিম কুক, গুগলের মূল প্রতিষ্ঠান অ্যালফাবেট-এর ল্যারি পেইজ এবং অ্যামাজনের জেফ বেজোস-এর মতো ‘প্রভাবশালী টেক নেতারা’ সর্বোচ্চ বেতন পাওয়ার এই দশজনের তালিকায় নাম লিখাতে পারেননি।

১০জনের মধ্যে একদম তলানিতে অবস্থান করছেন প্রাইসলাইন নামের মার্কিন প্রতিষ্ঠানের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা ড্যারেন আর. হাস্টন। বছরে তার পারিশ্রমিক দেড় কোটি মার্কিন ডলার। এই প্রতিষ্ঠান ভ্রমণসংক্রান্ত পণ্য এবং সেবা অনলাইনের মাধ্যমে সরবরাহ করে থাকে।

অনলাইনে প্রায় ১৯০টি দেশে গ্রাহকদের টিভি শো এবং সিনেমা দেখার সেবা প্রদানকারী মার্কিন প্রতিষ্ঠান নেটফ্লিক্স-এর প্রধান নির্বাহী রিড হ্যাসটিংস-এর বাৎসরিক পারিশ্রমিক ১ কোটি ৬০ লাখ ডলার, তিনি অবস্থান করছেন তালিকার নবম স্থানে।

অষ্টম স্থানে আছেন মার্কিন প্রযুক্তিপণ্য নির্মাতা হিউলেট প্যাকার্ড বা এইচপির প্রধান নির্বাহী মেগ হুইটম্যান। তার বাৎসরিক পারিশ্রমিক ১ কোটি ৭১ লাখ মার্কিন ডলার।

সপ্তম অবস্থানে আছেন ল্যোয়েল সি ম্যাকঅ্যাডাম। মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের টেলিযোগাযোগ পণ্য সরবরাহ এবং সেবাদাতা প্রতিষ্ঠান ভেরাইজন-এর এই প্রধান নির্বাহীর পারিশ্রমিক ১ কোটি ৮০ লাখ মার্কিন ডলার।

মার্কিন কম্পিউটার সফটওয়্যার নির্মাতা প্রতিষ্ঠান অ্যাডোবি-এর প্রধান নির্বাহী শান্তানু নারায়েন-এর বাৎসরিক বেতন ১ কোটি ৮৪ লাখ মার্কিন ডলার। এই ভারতীয় বংশোদ্ভূত মার্কিনি অবস্থান করছেন তালিকার ষষ্ঠ স্থানে।

যুক্তরাষ্ট্রভিত্তিক টেলিযোগাযোগ সেবাদাতা প্রতিষ্ঠান এটিঅ্যান্ডটি-এর প্রধান নির্বাহী র‌্যান্ডাল এল. স্টিফেনসন-এর বাৎসরিক আয় ২ কোটি ২৬ লাখ মার্কিন ডলার এবং তার স্থান পঞ্চম।

রোপার টেকনলোজিস-এর প্রধান নির্বাহী ব্রায়ান ডি. জেলিসন-এর বাৎসরিক বেতন ২ কোটি ৩২ লাখ মার্কিন ডলার এবং তিনি চতুর্থ স্থান দখন করে আছেন। এই মার্কিন প্রতিষ্ঠানটি প্রকৌশলী পণ্য উৎপাদনের জন্য পরিচিত, যা প্রযুক্তি শিল্প, রেডিও ফ্রিকোয়েন্সি, সায়েন্টিফিক এবং ইন্ডাস্ট্রিয়াল ইমেজিং, এনার্জি সিস্টেম এবং কনট্রোল নিয়ে কাজ করে থাকে।

মার্কিন ক্লাউড কম্পিউটিং প্রতিষ্ঠান সেলসফোর্স-এর প্রধান নির্বাহী মার্ক বেনিওফ-এর বাৎসরিক আয় ৩ কোটি ৩৪ লাখ মার্কিন ডলার এবং তিনি তৃতীয় স্থান দখল করে আছেন।

প্রতিষ্ঠান ধুকতে থাকলেও, ইয়াহু! প্রধান মারিসা মায়ার খুব একটা খারাপ নেই, এমন ধারণা করাই যায়। ৩ কোটি ৩৬ লাখ মার্কিন ডলার বেতন নিয়ে দ্বিতীয় স্থান অর্জন করেছেন তিনি।

সর্বোচ্চ বেতনের জায়গাটি দখল করেছেন একজন ইরানি-আমেরিকান। ভ্রমণবিষয়ক সাইট এক্সপেডিয়া-এর প্রধান নির্বাহী তিনি, নাম তার দারা খোসরোউশাহি। তিনি বছরে ৯ কোটি ৬৪লাখ মার্কিন ডলার পেয়ে থাকেন।