জেনে নিন মজার খেলা উনো'র নিয়মকানুন - প্রিয়লেখা

জেনে নিন মজার খেলা উনো’র নিয়মকানুন

ahnafratul
Published: November 18, 2017

ইনডোর গেমস কিংবা ঘরে বসে খেলার যে সমস্ত উপকরণ রয়েছে, তাদের মাঝে উনো একটি বহুল প্রচলিত ও জনপ্রিয় খেলা। কয়েকটি কার্ডের মাধ্যমে বেশ সহজেই আপনি উনো খেলতে পারবেন। আত্নীয় স্বজন, বন্ধু বান্ধব কিংবা বাড়িতে কেউ বেড়াতে এলে খুব সহজেই এক প্যাকেট উনোর মাধ্যমে কাটাতে পারেন প্রিয় কিছু সময়। আসুন, আজ প্রিয়লেখার পাতায় জেনে নিই উনো খেলার সাধারণ কিছু কৌশলঃ

২-১০ জন খেলোয়ার উনোতে অংশগ্রহণ করতে পারবেন। শাফল করবার পর ওপর থেকে একটি কার্ড নিয়ে ডিসকার্ড পাইলে(Pile) রাখার মাধ্যমে খেলা শুরু হয়। প্রত্যেক খেলোয়ারকে সাতটি করে কার্ড দেয়া হয়।

প্রথম দান কে দেবে, সাধারণত তা সর্ববাম থেকে ঠিক করা হয়। এছাড়াও খেলোয়ারদের মাঝে যার বয়স সবচেয়ে ছোট, তার দানের মাধ্যমেও খেলা শুরু করা যেতে পারে।

উনো খেলায় কি কি কার্ড ব্যবহার করা হয় তা ছবিতে দেয়া হলঃ

১) সাধারণত এই পাঁচ ধরণের কার্ড উনোতে ব্যবহার করা হয়ে থাকে। ডিসকার্ড পাইলে যে কার্ডটি রাখা আছে, প্রত্যেক খেলোয়ারকে সে কার্ডের সাথে মিল রেখে চাল দিতে হবে। মনে রাখতে হবে যে, উনো খেলায় রঙ, সংখ্যা, কিংবা অ্যাকশন কার্ডের সাথে মিল রেখে প্রত্যেক খেলোয়ারকে দান দিতে হবে। ধরা যাক, একজন খেলোয়ার লাল রঙের একটি কার্ড চাল দিয়েছেন, যার সংখ্যা হচ্ছে ৮। পরবর্তী খেলোয়ারের হাতে লাল নেই কিন্তু একটি কার্ড আছে যেখানে ৮ সংখ্যাটি রয়েছে। তিনি চাইলে ঐ কার্ডটি চালতে পারবেন। যদি তার কাছে সংখ্যার মিল না থেকে রঙের মিল থাকে, অর্থাৎ লাল থাকে, তাহলে তিনি সে কার্ডটিও চাল দিতে পারবেন।

২) একই রকম কার্ড আছে ৪টি করে। সংখ্যার কার্ড আছে 0, 1 , 2 , 3, 4, 5, 6, 7, 8. প্রত্যেকটি সংখ্যার চারটি করে কার্ড রয়েছে। এরমধ্যে রয়েছে কিছু পাওয়ার কার্ড বা ওয়াইল্ড কার্ড। একজন খেলোয়ার এই পাওয়ার কার্ডের মাধ্যমে খেলার গতি প্রকৃতি পরিবর্তন করে দিতে পারবেন।

৩) চিত্রে যে কার্ডটি দেখতে পাচ্ছেন, সেটির নাম হচ্ছে ওয়াইল্ড কার্ড। অর্থাৎ, আপনার হাতে যদি কোন সংখ্যা বা রঙ মেলাবার মত কার্ড না থাকে, তবে এই ওয়াইল্ড কার্ড থাকে, তাহলে এটি চাল দেবার মাধ্যমে আপনি পরবর্তী খেলোয়ারকে যে কোন রঙের একটি কার্ড চাল দেবার জন্য আদেশ করতে পারবেন। তবে মনে রাখবেন, এখানে আপনাকে বুদ্ধিমত্তার পরিচয় প্রদান করতে হবে। এমন কোন কার্ড চাল দেবার আদেশ দেবেন না, যেটি আপনার জন্যই বিপদ ডেকে আনে।

 

৪) এবার চিত্রে যে কার্ডটি দেখছেন, সেটি হচ্ছে রিভার্স বা উলটে দেয়া কার্ড। আপনার পরবর্তী খেলোয়ারকে যদি আপনি চাল দেয়াতে না চান, তাহলে আপনি চাইলেই এই রিভার্স কার্ড খেলতে পারবেন। এরফলে খেলা ডানদিকে বা আপনার উল্টোদিকে ঘুরে যাবে। তবে মনে রাখবেন রিভার্স কার্ড দেবার জন্য আপনাকে পাইলে থাকা কার্ডের রঙের সাথে মিল থাকতে হবে।

৫) চিত্রে যে কার্ডটি দেখতে পাচ্ছেন, সেটিকে বলা হয় স্কিপ কার্ড। আপনার কাছে যদি রঙ মিলে যায় কিন্তু ঐ সংখ্যার মিল না থাকে, তাহলে পরবর্তী খেলোয়ারের চাল বন্ধ করে দেবার জন্য স্কিপ কার্ডটি খেলতে পারবেন।

৬) ওয়াইল্ড কার্ড বা ওয়াইল্ড ফোর কার্ড যদি কেউ চেলে দেন, তাহলে পরবর্তী খেলোয়ারকে দুটি এবং চারটি কার্ড তুলে নিতে হবে। তবে মনে রাখবেন, আপনার হাতে যদি কোন রঙ বা সংখ্যা না থাকে, তবেই আপনি এই কার্ডটি চালতে পারবেন। কিন্তু যদি আপনার হাতে অ্যাকশন কার্ড থাকার পরও আপনি অন্যায়ভাবে এই দুটি কার্ড চেলে দেন, তাহলে আপনাকেই উলটো কার্ড গ্রহণ করতে হবে। যিনি আপনাকে চ্যালেঞ্জ করলেন, তিনি যদি ভুল প্রমাণিত হন, তাহলে তাকে আরো দুটো কার্ড অতিরিক্ত নিতে হবে।

এটি দিলে চারটি কার্ড তুলে নিতে হবে
এটি চাল দিলে দুটো কার্ড নিতে হবে

৭) এবার জেনে নেয়া যাক কোন কার্ডে কত পয়েন্ট রয়েছে। ড্র টু কার্ড- ২০ পয়েন্ট, রিভার্স কার্ড- ২০ পয়েন্ট, স্কিপ কার্ড- ২০ পয়েন্ট, ওয়াইল্ড কার্ড- ৫০ পয়েন্ট, ওয়াইল্ড ড্র ফোর- ৫০ পয়েন্ট। এই খেলাটি জিততে চাইলে একজন খেলোয়ারকে ৫০০ পয়েন্ট বাগিয়ে নিতে হবে।

৮) একটি গুরুত্বপূর্ণ কথা। আপনার হাতে একটি কার্ড রয়েছে। এটি আপনাকে অবশ্যই জানান দিতে হবে। এমন ভাবে “উনো” শব্দটি উচ্চারণ করতে হবে যাতে বাকি খেলোয়াররা শুনতে পায়। যদি আপনি না বলেন, তাহলে আপনি শেষ কার্ড চাল দেবার অযোগ্য বলে বিবেচিত হবেন এবং ডিসকার্ড পাইল থেকে আপনাকে আরেকটি কার্ড তুলে নিতে হবে।

তাহলে আর দেরি কেন? আজই শুরু করে দিন মজার খেলা উনো। আপনার পাশের লাইব্রেরী, সুপার মার্কেট ইত্যাদি জায়গায় পাবেন উনো কার্ডের দেখা। দাম নেবে প্রতি প্যাকেট ২০০-২৫০।

(সাহায্য নেয়া হয়েছে এই সাইটের)