গান বদলে দিতে পারে আপনার জীবনকে! - প্রিয়লেখা

গান বদলে দিতে পারে আপনার জীবনকে!

ahnafratul
Published: January 21, 2018

কাজ করতে করতে গানের সাথে মাথা ঠুকছেন কিংবা ব্যস্ত সড়কে প্রচন্ড জ্যামের মাঝে বসে কানে হেডফোন লাগিয়ে গান শুনছেন- এমন দৃশ্যগুলো খুবই সাধারণ। মাঝে মাঝে এমনটাও শোনা যায় যে অংক করবার সময় গান শুনলে নাকি অংক করবার প্রতি মনোযোগ আসে।

যারা ব্যায়ামমূলক কাজ করে থাকেন তাদের প্লে লিস্টে যদি এই বিষয়ক গান চলতে থাকে তবে তা খুবই উপকারী। এতে কাজের উদ্যমের প্রতি তারা নাকি আরো যত্নবান হতে পারেন।

Runners World নামের একটি ম্যাগাজিনে সম্প্রতি একটি গবেষণায় উঠে এসেছে যে জগিং করবার সময় যদি গান শুনতে শুনতে করা হয় তা ৭৫ শতাংশ মানুষের জন্য উপকারী। গান কিভাবে মানুষের জন্য অনুপ্রেরণাদায়ক হইয়ে উঠতে পারে কিংবা বা মানুষের কাজের জন্য এটি কতটা উপযোগী তা দশকের পর দশক গবেষণা করেছেন। ডক্টর কারাজিওর্গিস নামক এক বিজ্ঞানীর গবেষণায় তিনি বলেন যে, বিভিন্ন সুরের সাথে গানের ওঠানামা হয়ে থাকে। তখন মানুষের মন মেজাজ পরিবর্তন হতে থাকে। কেউ যদি হতাশায় ভুগতে থাকেন তাহলে সে হতাশাও তিনি কাটিয়ে উঠতে পারেন।

কুরোকো নো বাসুকে নামক এই এনিমেটি যারা দেখেছেন তারা জানবেন যে অন্যতম প্রধান চরিত্র কাগামে একটি বিশেষ মুহুর্তে ‘দ্য জোন’ নামক একটি অবস্থায় পৌঁছায়, যেখানে তাকে হারানোটা খুবই কষ্টদায়ক হয়ে ওঠে। ডক্টর কারাজিওর্গিস তার মতামতে বলেন যে মানুষ এনিমের এই চরিত্রের মত দ্য জোনে প্রবেশ করতে পারে না হয়ত ঠিকই কিন্তু গান শুনতে শুনতে তার মনের এমন একটি অবস্থায় পৌঁছায় যেখানে সে তার সর্বোচ্চ মনোনিবেশটুকু করতে পারে।

কিছু কিছু এথলেট প্রতিষ্ঠান ভয় পায় যে খেলোয়াররা এতই মনোনিবেশ করতে পারে যে তাদেরকে হারানোটা অপ্রতিরোধ্য হয়ে দেখা দিতে পারে।

সাঁতারের রাজা মাইকেল ফেল্পস বিখ্যাত তার প্লে লিস্টে চলা গানের তালিকার জন্য। তার শোনা গানের লিস্টের মাঝে হিপ হপ কিংবা রক ঘরানার গান বেজে থাকে। বলা হয়ে থাকে যে সুইমিং পুলে নামার আগে এ ধরণের গান শুনলে তার মনের জড়তাটুকু কেটে যায় এবং তাকে সাহায্য করে।

গান আমাদের জীবনে এমন একটি অংশ হয়ে দাঁড়িয়েছে যে, যে ব্যক্তি গান একদম পছন্দই করে না সেও হয়ত মাঝে মাঝেই গানের তালে আপনমনেই মাথা দুলিয়ে ওঠে। বিজ্ঞানীরা বলছেন এই গান যদি আমাদের জীবনের ইতিবাচকতায় কাজে লাগানো যায় তাহলে ক্ষতি কি?