খুঁতখুঁতে স্বভাবে বাড়তে পারে স্বাস্থ্য ঝুঁকি! - প্রিয়লেখা

খুঁতখুঁতে স্বভাবে বাড়তে পারে স্বাস্থ্য ঝুঁকি!

farzana tasnim
Published: July 27, 2017

রাসেল সারাক্ষণ তার চারপাশের সবকিছুর পরিষ্কার পরিচ্ছন্নতা নিয়ে ভীষণ খুঁতখুঁত করে। খাবার আগে প্লেট, গ্লাস নিজে দুবার ভালো করে ধুয়ে নেবে, ঘরে ঢুকে আধা ঘণ্টা পরপর বিছানা ঝাড়ু দেবে, প্রতিদিন বিছানার চাদর পালটাবে এমন হাজারো কাজে দিন কাটে তার। পরিবারের সদস্যরা খুব বিরক্ত হয়ে ভাবতে থাকে কি হবে এই ছেলেকে দিয়ে ! বিশুদ্ধতাবাদ বা নিখুঁত করার প্রবণতা (পারফেকশনিজম) সতর্কতার দৃষ্টিকোণ থেকে ভাল হলেও এটির নেতিবাচক দিকও রয়েছে। সবকিছুতে খুঁতখুঁতে ভাবের চিন্তা মানুষের মনের ওপর চাপ বাড়ায়। এতে ব্যর্থতার পরিমাণ বাড়ে যা স্বাস্থ্য ঝুঁকির সম্ভাব্য কারণ। নতুন এক গবেষণায় এমন কথা বলা হয়েছে। গবেষণায় দেখা গেছে, বিশুদ্ধতার চিন্তা মানুষের ব্যক্তিগত পারফরমেন্স বা সফলতার সম্পর্কে ভয় ও সন্দেহ তৈরি করে। যা মানসিক চাপ তৈরি করে। আর এই মানসিক চাপ সব কিছু ব্যর্থ করে দিতে পারে বিশেষ করে, মানুষ যখন খুব কঠিন হয় এবং নিজের খোঁজখবর নেওয়া বন্ধ করে দেয়।


ব্রিটেনের ইয়র্ক সেইন্ট ইউনিভার্সিটির সহকারী অধ্যক্ষ অ্যান্ড্রিউ হিলের নেতৃত্বে পরিচালিত এক গবেষণায় এ তথ্য বেরিয়ে এসেছে। ২০ বছর আগে থেকে ওই গবেষণা পরিচালনা করে আসছেন অ্যান্ড্রিউ।
এর আগে পরিচালিত ৪৩টি গবেষণার ফল বিশ্লেষণ করে উপরোক্ত সিন্ধান্তে পৌঁছেছেন গবেষকরা।
হিল বলেন, ‘পরিপূর্ণতার চিন্তা সম্পর্কের ক্ষেত্রেও প্রভাব ফেলে। যার ফলে পরিস্থিতি মোকাবেলা কঠিন হয়ে পড়ে। কারণ প্রতিটি ভুলকে বিপর্যয় হিসেবে বিবেচনা করা হয়।’
গবেষণার ফলাফলে দেখা গেছে, বিশুদ্ধতার চিন্তা কাজের সফলতায়, যেমন, স্কুল কিংবা খেলার মাঠে, প্রতিবন্ধকতা তৈরি করে।
তথ্যসূত্র: অনলাইন জার্নাল অব পার্সোনালিটি এন্ড সোশ্যাল সাইক্লোজি রিভিউ