ক্যারিয়ার হিসেবে ইন্টেরিয়র ডিজাইন - প্রিয়লেখা

ক্যারিয়ার হিসেবে ইন্টেরিয়র ডিজাইন

CIT-Inst
Published: June 15, 2017

বদলে যাচ্ছে দিন, তার পাশাপাশি বদলাচ্ছে ক্যারিয়ার ভাবনা। শিক্ষার মান বেড়ে যাওয়ায় দেশে চাকরীর বাজারে বিরাজ করছে ব্যাপক প্রতিযোগিতা। প্রতিযোগিতার তুলনায় আয়ের মান কিন্তু বাড়ছে না। তাই অনেকেই আজ পেশা হিসেবে স্বাধীন ও সৃজনশীল কিছু বেছে নিতে চাইছেন। আর দক্ষতা ও রুচিশীলতার  পরিচয় প্রকাশ করে যে আয় আসছে তা কিন্তু বড় মন্দ নয়।

ইন্টেরিয়র ডিজাইন জানতে হলে কি আর্কিটেক্ট বা শিল্পী হতে হয় ?

গতানুগতিক আর্কিটেক্ট পেশার অন্তর্গত নয় কিন্তু নিজের আইডিয়ার শৈল্পিক প্রকাশ ঘটাচ্ছেন আজকের দিনের ইন্টেরিয়র ডিজাইনাররা। এই পেশায় যেমন আছেন চারুকলার শিল্পীরা, তেমনি আছেন সাধারন অনার্স, মাস্টার্স করা শিক্ষার্থীরাও। কিভাবে আসছেন তারা এই পেশায়? সেটি জানতে চাওয়া হয় ক্রিয়েটিভ আইটি ইনস্টিটিউট এর ইন্টেরিয়র ডিজাইন এর প্রশিক্ষক জনাব শামসুল আরেফিন এর কাছে। তিনি প্রিয়লেখাকে বলেনঃ ইন্টেরিয়র ডিজাইনার হতে হলে যে আর্কিটেক্ট বা শিল্পী হতে হবে তা নয়। সাধারন শিক্ষার্থীরা চাইলেই বিভিন্ন লং কোর্স ও শর্ট কোর্স করে হতে পারেন ইনটেরিয়র ডিজাইনার। খালি চাই আইডিয়া ও প্রচেষ্টা এবং খানিক টা ভিন্ন দৃষ্টি ভঙ্গি। কিভাবে শিখাচ্ছেন আপনার শিক্ষার্থীদের? এই প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, আমরা আমাদের শিক্ষার্থীদের প্রোজেক্ট ভিত্তিক হাতে কলমে ইন্টেরিয়র  ডিজাইন শিখিয়ে থাকি। শিক্ষার্থীরা যেসব প্রোজেক্ট করেন, তার মধ্যে রয়েছে –

  • রেসিডেন্স 
  • কমার্শিয়াল কমপ্লেক্স
  • রেস্টুরেন্ট
  • ডিপার্টমেন্টাল স্টোর  
  • শপিং মল
  • বুথ/স্টল

অটোক্যাড, গুগল স্কেচ আপ ও লুমিয়ন ছাড়াও থ্রীডি ম্যাক্স জাতীয় সফটওয়্যার এর প্রয়োগ ঘটিয়ে ক্লায়েন্ট কে যে কোন প্রোজেক্টের রিয়েলিস্টিক প্রেজেন্টেশন দেওয়া হয়ে থাকে।

ইন্টেরিয়র ডিজাইনার কিভাবে কাজ করেনঃ

 

একজন ইন্টেরিয়র ডিজাইনারকে শুধু ক্লায়েন্টের ডিজাইন করে দিলেই হয় না, দায়িত্ব নিয়ে কাজ করতে হয়। ছোট ছোট প্রতিটি জিনিস তার মাথায় থাকতে হয়। লাইটিং কেমন হবে, ফার্নিচার কোথায় বসবে, তার ডিজাইন কেমন হবে, কোথায় কোন রঙ ব্যবহার করলে মানাবে, এমন কি তাকে আবহাওয়া ও পরিবেশ নিয়েও ভাবতে হয়।ম্যাটেরিয়াল সম্পর্কেও থাকতে হয় পরিস্কার ধারনা যার মধ্যে থাকে কাঠ,গ্লাস,টাইলস, স্টিল, রঙ তাই একজন ইন্টেরিয়র ডিজাইনার ভাবেনঃ

  • সার্বিক পরিকল্পনা
  • পরিবেশ
  • পরিসর/জায়গা
  • টেক্সচার প্রভৃতি নিয়ে।

এক কথায় একজন ইন্টেরিয়র ডিজাইনার সকল কাজের কাজি।

পেশাজীবি হিসেবে কাজের ক্ষেত্রঃ

একজন সৃজনশীল ইন্টেরিয়র ডিজাইনারের চাহিদা রয়েছে বিশ্বব্যাপী।দেশেই ইন্টেরিয়র ডিজাইনার পেশাজীবী হিসেবে কাজ করতে পারেনঃ

  • ডেভেলপমেন্ট কোম্পানিতে
  • ডিজাইন কন্সাল্টেন্সি ফার্মে
  • মাল্টিন্যাশনাল কর্পোরেট গ্রুপে
  • হোটেল চেইনে
  • বিজ্ঞাপনী সংস্থা
  • উদ্যোক্তা প্রভৃতি ।

কাজ করার সুযোগ রয়েছে অনলাইন মার্কেটপ্লেস গুলোতেওঃ

ইন্টেরিয়র ডিজাইনারের জন্য মার্কেট প্লেসগুলোতেও রয়েছে কাজের অনেক সুযোগ। চাইলেই ঘুরে আসতে পারেন upwork, fiverr, peopleperhour, 99designs, Arkbazar থেকে। জানতে পারবেন ফ্রীল্যান্সার ইন্টেরিয়র ডিজানারদের চাহিদা ও তাদের আয়ের ধরন।

কোথায় শিখবেন ও কেমন খরচঃ

বাংলাদেশে বেশ কিছু প্রতিষ্ঠান ইন্টেরিয়র ডিজাইনিং এর উপর শর্ট কোর্স ও লং কোর্স করাচ্ছেন। এর মধ্যে রয়েছে ক্রিয়েটিভ আইটি ইনস্টিটিউট, ন্যাশনাল ইনস্টিটিউট অফ ডিজাইন, বাংলাদেশ ইন্টেরিয়র ডিজাইন ডেভেলপমেন্ট (বিআইডিপি), ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ইউ অ্যান্ড অ্যালায়েন্স বিভাগ, বাংলাদেশ ইনস্টিটিউট অব ডিজাইন অ্যান্ড ডেভেলপমেন্ট, ইনস্টিটিউট অব ইনোভেটিভ ডিজাইন ইত্যাদি। । প্রতিষ্ঠানভেদে কোর্স গুলো ৩মাস থেকে ১বছর মেয়াদী। কোর্স করতে খরচ পড়বে ৩০ হাজার টাকা থেকে ১লাখ টকা পর্যন্ত (কোর্সের মেয়াদ ও প্রতিষ্ঠানভেদে) ।

স্মার্ট ক্যারিয়ার বদলে দিন আপনার আগামী কে এখুনি।

 

তথ্যসুত্রঃ https://goo.gl/LOuGp5