যত সব কুসংস্কার দেশে দেশে ! - প্রিয়লেখা

যত সব কুসংস্কার দেশে দেশে !

CIT-Inst
Published: June 9, 2017

হাজারো কুসংস্কার আমাদের দেশে প্রচলিত রয়েছে। একবিংশ শতাব্দীতে এসে অনেকেই কুসংস্কারে বিশ্বাস করেন না। আবার দেশের আবহমান গ্রাম বাংলায় এধরণের নানা কথা দাদী নানীদের মুখে আমরা শুনতে পাই। এসব কথার কোন ভিত্তি নেই, নেই কোন বৈজ্ঞানিক ব্যাখা। তবুও মানুষ বিশ্বাস করে। এর কারণ আসলে কি? কুসংস্কার বলতে আসলে কি বোঝায়?

  • রাতে নখ কাটা ভালো নয়!
  • মাথায় দেবার বালিশ কখনো পা দিয়ে মাড়িয়ে দিতে নেই!
  • ছোট বাচ্চারা যেন কখনো বড়দের পায়ের মাঝ দিয়ে হামাগুড়ি দিতে না পারে!
  • পরীক্ষা দেবার আগ মূহুর্তে কখনো ডিম খেতে নেই!

নানা দেশে অসংখ্য কুসংস্কার প্রচলিত রয়েছে। এসব কুসংস্কার ঐ দেশের অধিবাসীরা মেনে চলে আবার সে অনুযায়ী তাদের জীবনযাত্রাও নির্বাহ করে। কিছু কিছু কুসংস্কার খুব মজার আবার কিছু কিছু কুসংস্কার মানুষের প্রাণও কেড়ে নেয় কখনো কখনো। যেমন, ভারতের ঝাড়খন্ডে নবরাত্রির মেলায় একটি মেলা পালন করে থাকে সেখানকার লোকেরা, যাকে বলা হয় ‘ভূতমেলা’। এই ভূতমেলায় প্রতি বছর অদ্ভুত সব কস্টিউম পড়ে সেখানকার লোকজন ভূত মেলা পালন করে থাকেন।

তবে চিন্তার ব্যাপার হচ্ছে, সেখানে তন্ত্র মন্ত্র বিদ্যা হয় এবং বিভিন্ন স্থান থেকে ‘বাবা’রা এসে অসহায়, অশিক্ষিত মানুষদের ঠকিয়ে বেশ কিছু উপার্জন করে থাকেন। আবার কেউ কেউ এটা নিয়ে দাঙ্গায়ও লিপ্ত হয়ে যায়।

আসুন, আজ জেনে নেয়া যাক বিশ্বের বিভিন্ন দেশের কিছু মজার ও অদ্ভুত কুসংস্কারঃ

 

১) আর্জেন্টিনাঃ

আর্জেন্টিনার অধিবাসীরা মনে করেন তাদের পূর্ব প্রেসিডেন্ট কার্লোস মেনেমের নাম উচ্চস্বরে যদি কেউ বলে, তাহলে তার শারীরিক ক্ষতি হতে পারে। যেমন, কারো শরীরের স্পর্শকাতর জায়গায়  গাছের গুঁড়ি দিয়ে আঘাত করা হলে সে যেমন ব্যথা অনুভব করবে, মেনেমের নাম উচ্চস্বরে উচ্চারণ করলে ঠিক তাই ঘটবে।

২) ব্রাজিলঃ

ব্রাজিলে প্রচলিত কুসংস্কার হচ্ছে, আপনার পকেট থেকে যদি মানিব্যাগ মাটিতে পড়ে যায়, তাহলে আপনার বেশ কিছু টাকার লোকসান হতে যাচ্ছে।

৩) ডেনমার্কঃ

ডেনমার্কে সারা বছর ধরে ভাঙা বাসন কোসনের অংশ জমা করে রাখা হয়। এই ভাঙা অংশগুলো নিয়ে একটা মজার কাজ করা হয়ে থাকে। নিউ ইয়ার ইভে বন্ধুবান্ধবদের বাড়ির সামনে এই অংশগুলো ছুঁড়ে ফেলা হয়। যার ভাঙা অংশ যতি বেশি হবে, ধারণা করা হয় যে নতুন বছর তার জন্য তত ভালো খবর নিয়ে আসবে।

 ৪) ঈজিপ্টঃ

ঈজিপ্টে কাঁচি নিয়ে দুটো কুসংস্কার রয়েছে। প্রথমটি হচ্ছে, কেউ যদি কোন কিছু না কেটে কাঁচি খুলে রাখে, তাহলে ঘোর দূর্যোগ নিয়ে আসছে পরিবারের জন্য।

দ্বিতীয়টি হচ্ছে, কোন অসুস্থ ব্যক্তির বালিশের নিচে যদি কাঁচি রাখা হয় তাহলে সে দ্রুত আরোগ্য লাভ করবে।

৫) ফ্রান্সঃ

ফ্রান্সের অধিবাসীরা মনে করেন, রাস্তায় হাঁটার সময় যদি বাঁ পায়ের নিচে কুকুরের বিষ্ঠা চাপা পড়ে, তাহলে তা সৌভাগ্য বয়ে নিয়ে আসবে। কিন্তু যদি ডান পায়ের নিচে হয়, তাহলে তা দূর্ভাগ্য বয়ে নিয়ে আসবে।

৬) গ্রীসঃ

গ্রীসের অধিবাসীরা কেউ যদি একত্রে কোন কথা বলে ফেলেন, তাহলে সাথে সাথে তাদের দুটি শব্দ উচ্চারণ করতে হয়। শব্দ দুটি হচ্ছে “পিয়াসে কক্কিনো”। এই পিয়াসো কক্কিনোর মানে হচ্ছে “লাল কোন কিছু ছুঁয়ে দাও”। দুজন ব্যক্তি যদি একইসাথে কোন কথা বলে ফেলেন, তাহলে সাথে সাথে তাদের লাল কিছু ছুঁয়ে ফেলতে হবে। তা না হলে দুজনের মাঝে একটি রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষ দেখা দেবে।

 ৭) জাপানঃ

জাপানে যদি রাতের বেলা বজ্রপাত ঘটে, তাহলে শিশুদের বলা হয় সাথে সাথে তারা যেন তাদের পেট ঢেকে রাখে। তা না হলে ‘রাইজিন’ (বজ্রপাতের দেবতা) তাদের পেট ভক্ষণ করবে!

 

এছাড়াও পৃথিবীর বিভিন্ন দেশে এরকম আরো নানা ধরণের মজার মজার কুসংস্কার রয়েছে। আগ্রহীরা নেট ঘেঁটে জেনে নিতে পারবেন অদ্ভুত এসব কুসংস্কার ও তাদের শিকড়ের কথা।